Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

প্রেমের টানে পাকিস্তান যেতে চেয়েছিলেন স্কুল শিক্ষিকা ফিজা খান, আটক করলো বিএসএফ

(Image: Zee News)

সোশ্যাল মিডিয়ায় পাকিস্তানি যুবকের সঙ্গে আলাপ ও পরে প্রেম। আর সে কারণে নিজের চাকরি ছেড়ে পাকিস্তানে গিয়ে সংসার পাতার স্বপ্ন দেখেছিলেন স্কুল শিক্ষিকা ফিজা খান। সেই মতো পাসপোর্ট ও ভিসা নিয়ে পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সীমান্তে বিএসএফ আটকে দেওয়ায় আপাতত সে পরিকল্পনা ভেস্তে গিয়েছে।

খবর অনুযায়ী, মধ্য প্রদেশের রিবা জেলার বাসিন্দা ফিজা খান(২৪)। পেশায় স্কুল শিক্ষিকা। কয়েক মাস আগেই ফেসবুকের মাধ্যমে তাঁর সঙ্গে আলাপ হয় এক পাকিস্তানি যুবকের সঙ্গে। যুবক তাঁর নাম দিলশাদ বলে জানায়। পরিচয় থেকে ধীরে ধীরে সম্পর্ক গভীর হয়। এক সময় দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দুজনেই এক সাথে থাকবেন বলে ঠিক করেন।

সেই মতো পাকিস্তানে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ফিজা খান পাসপোর্ট বানান। নিয়ম মেনে নেন ভিসাও। তারপর স্কুলের চাকরি ছেড়ে, জমানো সমস্ত টাকা পয়সা নিয়ে ঘর বাঁধার স্বপ্ন নিয়ে বাড়ি ছাড়েন ফিজা। গত ২০শে জুন মধ্য প্রদেশের বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন ফিজা, কাউকে কিছু না জানিয়েই 

এদিকে মেয়ের খোঁজ না পেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয় ফিজার পরিবার। পুলিশ বাড়িতে থাকা ফিজার একটি ফোন পরীক্ষা করে একাধিক পাকিস্তানি ফোন নম্বরের খোঁজ পায়। এমনকি ওই সব নম্বরে দীর্ঘসময় কথা বলার প্রমান পায় পুলিশ। তারপরই ফিজার বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস জারি করে পুলিশ। সেই নোটিস পাঠানো হয় পাকিস্তান সীমান্তবর্তী রাজ্যগুলিতেও।

এদিকে গত ২৩শে জুন ট্রেন ধরে পাঞ্জাবে পৌঁছে যায় ফিজা। সেখান থেকে আট্টরি সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে যাওয়ার আগেই ফিজাকে আটক করে বিএসএফ। তাকে তুলে দেওয়া হয় পাঞ্জাব পুলিশের হাতে। পরে ফিজাকে মধ্য প্রদেশ পুলিশের হাতে তুলে দেয় পাঞ্জাব পুলিশ। কেন তিনি পাকিস্তানে যেতে চেয়েছিলেন, তা বিস্তারিত জানতে ফিজাকে জেরা করছে পুলিশ। 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom