Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

আসাম: ধুবড়িতে পুলিশের এনকাউন্টার, গো-মাফিয়া আদম আলীর মৃত্যু

Image credits: Dhubri Police

ধুবড়ি পুলিশের এনকাউন্টারে মৃত্যু হলো কুখ্যাত গো-মাফিয়া আদম আলীর। আজ সকালে ধুবড়ি জেলার ছাগলিয়া গেট এলাকায় পুলিশের কবল থেকে পালানোর চেষ্টা করে সে। তখনই গুলি চালায় পুলিশ। উল্লেখ্য, ছাগলিয়া এলাকাটি আসাম-পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তের কাছেই অবস্থিত।

জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগেই আদম আলীকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সময়ের উত্তর-পূর্ব ভারতের একাধিক রাজ্যে গরু পাচার এবং অস্ত্র পাচারের অভিযোগ ছিল। আজ তদন্তের স্বার্থে আদম আলীকে ছাগলিয়া গেট এলাকায় নিয়ে গিয়েছিল পুলিশ। সেই সময় সে পুলিশের হেফাজত থেকে পালানোর চেষ্টা করে। পুলিশের সতর্কতা সত্বেও সে থামেনি। তখন বাধ্য হয়ে গুলি চালায় পুলিশ। আর তাতেই মৃত্যু হয় তাঁর। 

প্রসঙ্গত, আদম আলী আসাম সমেত উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজয়গুলিতে কুখ্যাত হিসেবে পরিচিত। আদম আলী ও তাঁর দলবল গরু পাচার থেকে শুরু করে অস্ত্র পাচারও করতো। এমনকি পশ্চিমবঙ্গ থেকে গরু আসামের বিভিন্ন এলাকায় পাচার করা, বাংলাদেশে পাচার করার অভিযোগ ছিল তাঁর বিরুদ্ধে। আর এই পাচার করে বিপুল সম্পত্তির মালিক হয়েছিল সে। পশ্চিমবঙ্গ, আসাম সমেত একাধিক রাজ্যে তাঁর বিপুল সম্পত্তি রয়েছে বলে খবর।

গত ২০২০ সালে ধুবড়ি পুলিশ ও গুয়াহাটি পুলিশের একটি দল বিপুল অস্ত্র সমেত তাকে গ্রেপ্তার করেছিল। পরে আদালত থেকে জামিন পেয়ে যায় সে। জামিন পেয়েই ফের জোর কদমে গরু পাচার ও অস্ত্র কারবার শুরু করে। একাধিক রাজ্যে ডেরা থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করতে যথেষ্ট বেগ পেতে হয় আসাম পুলিশকে। শেষমেশ কয়েকদিন আগেই তাকে গ্রেপ্তার করেছিল ধুবড়ি পুলিশ। আর আজ সেই ধুবড়ি পুলিশের কবল থেকে পালাতে গিয়ে এনকাউন্টারে মৃত্যু হলো তাঁর।

If you love our work, you can help us by contributing a small amount.

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom