Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

জম্মু-কাশ্মীর: ৭৫ বছর পরে ন্যায়, দেশভাগের বলি হিন্দু-শিখ উদ্বাস্তুরা পাবেন ভোটাধিকার

Image credits: Amar Ujala


৩৭০ ধারা রদ হওয়া এবং  কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল হওয়ার পর জম্মু-কাশ্মীরে নির্বাচন প্রক্রিয়ার প্রস্তুতি চলছে। খবর অনুযায়ী, এই বছরের শেষ নাগাদ জম্মু-কাশ্মীরে নির্বাচন হওয়ার কথা। আর এর প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সেই প্রস্তুতির প্রথম ধাপে ভোটার তালিকা আপডেট করার কাজ চলছে জোর কদমে।

আর ভোটার তালিকা আপডেটের সময় সব চেয়ে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ হলো দেশভাগের বলি হিন্দু উদ্বাস্তুদের ভোটাধিকার দেওয়া। ১৯৪৭ সালে উদ্বাস্তু হয়ে জম্মু-কাশ্মীরে আশ্রয় নেওয়া হিন্দুরা পাচ্ছেন ভোটাধিকার, যারা স্বাধীনতার পরে দীর্ঘ ৭৫ বছর ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ছিলেন। এর পাশাপাশি দেশের অন্য রাজ্য থেকে আসা বাসিন্দারাও পাবেন ভোটাধিকার। 


নির্বাচন কমিশনের তরফে এমন ঘোষণার পরই সক্রিয় হয়ে উঠেছে ইসলামিক মৌলবাদী গোষ্ঠী ও তাদের দোসর রাজনৈতিক নেতারা। ফারুক আব্দুল্লাহ থেকে মেহবুবা মুফতি, সবাই এমন পদক্ষেপের বিরোধিতা করছেন। এদের মধ্যে বংশগতভাবে রাজনৈতিক ক্ষমতা ভোগ করা ব্যক্তিরা নানারকম মন্তব্য করে মানুষের মধ্যে ভ্রম ছড়ানোর চেষ্টা করে চলেছেন। কিন্তু নির্বাচন কমিশন সেই সব প্রচারকে উড়িয়ে দিয়েছে।


জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক হৃদেশ কুমার সিং বলেন, ‛৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর এই প্রথম কিছু মানুষ ভোট দিতে পারবেন। বহুদিন ধরে জম্মু-কাশ্মীরে থাকা কিছু মানুষ, যারা কাশ্মীরি নন, তাঁরাও ভোটাধিকার পাবেন।

তিনি আরও বলেন, ৩৭০ ধারা বাতিলের সঙ্গেই জম্মু-কাশ্মীরের বিষেশ মর্যাদা খতম হয়েছে। ফলে অন্য রাজ্য থেকে কর্মসূত্রে আসা ব্যক্তি, শ্রমিক, ছাত্র চাইলেই রাজ্যের ভোটাধিকার পাবেন। নির্বাচন কমিশনের আশা, নতুনভাবে প্রায় ২৫ লাখ মানুষ ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবেন। নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে যে আগামী ১৫ই সেপ্টেম্বর থেকে ২৫শে অক্টোবর পর্যন্ত ভোটার তালিকায় নাম তোলার কাজ চলবে। তারপরই অপডেটেড ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে।

আর এই ঘোষনার ফলে জম্মু-কাশ্মীরে বসবাস করা দেড় লাখ হিন্দু ও শিখ ভোটাধিকার পাবেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ দেশভাগের সময় পাকিস্তানের সিয়ালকোট অঞ্চল থেকে জম্মু-কাশ্মীরে আশ্রয় নিয়েছিলেন প্রায় ৭৫ হাজার হিন্দু ও শিখ। বর্তমানে তাদের সংখ্যা প্রায় দেড় লাখ। দীর্ঘ এত বছর ভারতে থাকলেও তাঁরা ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ছিলেন। ভোটাধিকার না থাকায় সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত ছিলেন তাঁরা। কিন্তু ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পরে এই প্রথম তাঁরা ভোটাধিকার পাচ্ছেন। 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom