Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

কংগ্রেস, বামপন্থী ও ইসলামিক মৌলবাদীদের বিরোধিতা; ভারত মাতার পূজা হলো না ম্যাঙ্গালোর বিশ্ববিদ্যালয়ে

 

স্টুডেন্টস কাউন্সিল ভারত মাতার পূজা করতে চেয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয়ে। প্রথমে উপাচার্য অনুমতি দিলেও কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন, বামপন্থীদের ছাত্র সংগঠন, ইসলামিক মৌলবাদী ছাত্র সংগঠন CFI(ক্যাম্পাস ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া)-এর বিরোধিতার কারণে সেই অনুমতি বাতিল করলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। আর তার ফলে আজ ১১ই আগস্ট ম্যাঙ্গালোর বিশ্ববিদ্যালয়ে হলো না ভারত মাতার পূজা। 

জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্টস কাউন্সিলের পক্ষ থেকে ক্যাম্পাসে ভারত মাতার পূজা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। সেই উদ্যোগকে সম্পূর্ণরূপে সমর্থন জানায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ABVP(অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ) ইউনিট। সেই মত স্টুডেন্টস কাউন্সিল পূজার জন্য একটি পোস্টার প্রকাশ করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে বিভিন্ন স্থানে সেই পোস্টার লাগানো হয়। পূজার অনুমতিও দেন উপাচার্য।

কিন্তু সেই পূজার কথা জানতে বিরোধিতা শুরু করে কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন। তাদের অভিযোগ, ভারত মাতার পূজা করলে ক্যাম্পাসের ভিতরের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হবে। তাদের সুরে সুর মেলায় বামপন্থী ছাত্র সংগঠন। তাঁরাও পূজার বিরোধিতায় সরব হয়। ভারত মাতার পূজা আসলে হিন্দুত্ববাদী এজেন্ডা চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা, অভিযোগ তোলে বামপন্থীরা। 

সবার থেকে একধাপ এগিয়ে বিরোধিতা শুরু করে মুসলিম ছাত্র সংগঠন CFI। উল্লেখ্য, CFI হলো ইসলামিক মৌলবাদী সংগঠন পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া(PFI)-এর ছাত্র সংগঠন। তাঁরা তীব্র বিরোধিতা শুরু করে। তাদের তরফে বলা হয় যে ভারত মাতার হাতে গেরুয়া পতাকা রয়েছে। শুধু তাই নয়, ভারত মাতার পিছনে থাকা অখণ্ড ভারতের ম্যাপ কেন থাকবে, সেই প্রশ্ন তোলে CFI। তাছাড়া, স্থানীয় কংগ্রেস বিধায়ক এন এ হ্যারিস বয়ান দেন যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে পূজা করা ঠিক না। তারপরই পূজার অনুমতি বাতিল করেন উপাচার্য। ফলে ম্যাঙ্গালোর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে যে ভারত মাতার পূজা হওয়ার কথা ছিল, তা আজ হলো না।  

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom