Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

বাংলাদেশের হিন্দু নির্যাতন নিয়ে নীরব; পাকিস্তানের ভয়াবহ বন্যায় দুঃখপ্রকাশ করলেন নরেন্দ্র মোদী

Image credits: Real Report

অত্যাধিক বৃষ্টিপাতের ফলে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে পাকিস্তানে। দেশটির একাধিক প্রান্তে বিপর্যস্ত জনজীবন। খবর অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত ১০০০-এর বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আর পাকিস্তানের বাসিন্দাদের এমন দুর্দিনে দুঃখপ্রকাশ করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে নরেন্দ্র মোদী লিখেছেন যে পাকিস্তানের বন্যার ধ্বংসলীলা দেখে দুঃখিত। এই বন্যায় আহত ও ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা। আশা করছি শীঘ্রই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

ছবি: নরেন্দ্র মোদীর করা টুইটের স্ক্রিনশট

তবে প্রধানমন্ত্রীর এমন টুইটে অবাক নেটিজেনদের একাংশ। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের মাটিতে সন্ত্রাসীদের মদত দেওয়ার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। এ নিয়ে পাকিস্তানকে বারবার নিশানা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এমনকি নুপুর শর্মা এবং CAA ইস্যুতেও ভারত সরকারের সমালোচনা করেছিল পাকিস্তান। তাছাড়া ভারতে মুসলিমরা নিরাপদ নয়, এমন একটা ধারণা বিশ্বে ছড়িয়ে ভারতের ভাবমূর্তিকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করে আসছে পাকিস্তান। তবে সে দেশের মাটিতে হিন্দু সংখ্যালঘুদের উপরে হওয়া ইসলামিক মৌলবাদীদের ভয়াবহ নির্যাতন নিয়ে অবশ্য পাকিস্তান সরকার বরাবরই নীরব। একইরকম অবস্থা নরেন্দ্র মোদীরও। 

অতীত পর্যালোচনা করলে এটা বুঝতে অসুবিধা হয়না যে, ভারতের দুই প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশ(পূর্বতন পূর্ব পাকিস্তান) এবং পাকিস্তান(পূর্বতন পশ্চিম পাকিস্তান) পর্যায়গত ধাপে দেশ থেকে হিন্দু সংখ্যালঘুদের মুছে ফেলতে চায়। তবে বিগত কয়েক বছরে এই দুটি দেশে ইসলামিক মৌলবাদীরা লাগাতার অত্যাচার চালিয়ে গেলেও তাঁর নিন্দায় একটি শব্দও খরচ করেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দুঃখপ্রকাশ করে কোনো পোস্টও করেননি। ফলে পাকিস্তানের বন্যায় মোদীর দুঃখপ্রকাশ করে পোস্ট করা দেখে অবাক অনেকেই। 

অনেকে আবার গত বছর দুর্গা পূজার সময় বাংলাদেশের হিন্দুদের উপরে হওয়া নির্যাতনের প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। তাঁরা বলছেন, সেই সময় সারা বাংলাদেশ জুড়ে হিন্দু মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুর, খুন হলেও দুঃখপ্রকাশ করেননি নরেন্দ্র মোদী। শুধু তাই নয়, ভারতের একাধিক রাজ্যে হওয়া হিন্দু নির্যাতন নিয়েও নীরব মোদী। নিন্দুকেরা বলছেন, নিজেকে বিশ্বের নেতা হিসেবে তুলে ধরতে নিজের হিন্দুত্ব ইমেজ ঝেড়ে ফেলতে চাইছেন মোদী। আর তাই হিন্দু নির্যাতন নিয়ে নীরব থাকেন তিনি।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom