Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

তালাক দেওয়া কিংবা পুনর্বিবাহ করতে মুসলিম পুরুষদের বাধা দিতে পারিনা, বললো কেরালা হাইকোর্ট

Image credits: Live Law


স্ত্রীকে তালাক দেওয়া কিংবা পুনরায় বিবাহ করার ক্ষেত্রে একজন মুসলিম পুরুষকে বাধা দিতে পারিনা। এক রায়ে এমনটাই বললো কেরালা হাইকোর্ট।

গত ১৭ই আগস্ট কেরালা হাইকোর্টের বিচারপতি এ মুহাম্মদ মুস্তাক এবং বিচারপতি সোফি থমাসের ডিভিশন বেঞ্চ এক মুসলিম ব্যক্তির দায়ের করা পিটিশনের ক্ষেত্রে এমন রায় দেয়।

কোল্লাম জেলার এক মুসলিম ব্যক্তি চাবারা(Chavara) ফ্যামিলি কোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কেরালা হাইকোর্টে দুটি পিটিশন(OP-FC Nos. 394, 395/2022) দায়ের করেন। দায়ের করা পিটিশনে ওই ব্যক্তি তাঁর স্ত্রীকে ফাইনাল তালাক দেওয়া ও পুনর্বিবাহ করার ক্ষেত্রে যে নিষেধাজ্ঞা চাবারা ফ্যামিলি কোর্ট দিয়েছিল, তাকে চ্যালেঞ্জ করেন। 

কেরালা হাইকোর্টে আইনজীবী মাজিদা এস ওই মুসলিম ব্যক্তির হয়ে সওয়াল করেন। সওয়াল জবাব শেষে বিচারপতিদের ডিভিশন বেঞ্চ ফ্যামিলি কোর্টের রায়কে বাতিল ঘোষণা করেন।  রায়ে বলা হয়, একজন ব্যক্তিকে তাঁর ধর্মপালনের অধিকারের ক্ষেত্রে কোর্টের কোনও ভূমিকা নেই। এক্ষেত্রে তাঁর পার্সোনাল ল' রয়েছে।

 রায়ে বলা হয়েছে, “The court has no role in restraining the parties invoking their personal law remedies. The court should not forget the mandate of Article 25 of the Constitution, which not only allows one to profess religion but also practice.”

রায়ে হাইকোর্ট আরও বলে যে যদি কোনও আদালত ওই মুসলিম ব্যক্তিকে তালাক দেওয়া কিংবা পুনর্বিবাহ করার ক্ষেত্রে বাধা দেয়, তবে তা ওই ব্যক্তির সাংবিধানিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হবে। 
In essence, if any orders are passed restraining one from acting in accordance with personal belief and practice, that would amount to encroaching on his constitutionally protected rights.

 প্রসঙ্গত, ওই মুসলিম ব্যক্তি তাঁর স্ত্রীকে তালাক দিয়ে দ্বিতীয়বার বিবাহ করতে চেয়েছিলেন। ইসলামিক নিয়ম মেনে ওই ব্যক্তি দুই তালাক দেন। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রী ফ্যামিলি কোর্টের দ্বারস্থ হন। ফ্যামিলি কোর্ট ওই মুসলিম ব্যক্তির বিরুদ্ধে গিয়ে তৃতীয় তালাক দেওয়া এবং পুনর্বিবাহ করতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কেরালা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন ওই মুসলিম ব্যক্তি।  

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom