Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

উইঘুর মুসলিমদের ধরে ধরে নির্বিজকরণ করেছে চীন, রিপোর্টে জানালো রাষ্ট্র সংঘ

Image credits: Forbes


 উইঘুর মুসলিমদের উপরে অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি। জোর করে লেবার ক্যাম্পে বন্দী করে রাখা, ধর্ষণ করা, যৌন নির্যাতন থেকে শুরু করে পুরুষ ও মহিলাদের নির্বিজকরণ করেছে চীন। গতকাল প্রকাশিত এক রিপোর্টে এমনটাই জানালো রাষ্ট্র সংঘের মানবাধিকার কমিশন। 

উল্লেখ্য, দীর্ঘ অপেক্ষার পর গতকাল রাষ্ট্র সংঘের মানবাধিকার কমিশন উইঘুর মুসলিমদের উপরে হওয়া নির্যাতনের ঘটনায় একটি রিপোর্ট পেশ করে। রিপোর্টের নাম “OHCHR Assessment of human rights concerns in the Xinjiang Autonomous Region, People's Republic of China”। সেই রিপোর্টে বলা হয় বিচ্ছিন্নতাবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমনের নামে উইঘুর মুসলিম(Uyghur Muslims)দের উপরে অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছে চীন।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, সন্ত্রাসবাদ দমনের নামে বহু উইঘুর মুসলিমকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে এসে ভরে দেওয়া হয়েছে বিশেষ ক্যাম্পে। মানবাধিকার কমিশনের হিসেবে সেই সংখ্যা ১০ লক্ষের বেশি। সেখানে তাদের উপরে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। মহিলাদের তুলে এনে লাগাতার ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতন করা হয়েছে।

CRIMES AGAINST HUMANITY IN XINJIANG? The REPORT SAYS, “THE EXTENT OF ARBITRARY AND DISCRIMINATORY DETENTION OF MEMBERS OF UYGHUR AND OTHER PREDOMINANTLY MUSLIM GROUPS MAY CONSTITUTE INTERNATIONAL CRIMES,  IN PARTICULAR CRIMES AGAINST HUMANITY.”

শুধু তাই নয়, উইঘুর জনসংখ্যাকে মুছে ফেলতে সচেষ্ট চীন। যাতে উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা সন্তানের জন্ম দিতে না পারে, সেই জন্য ক্যাম্পে ধরে এনে অপারেশন করা হয়েছে উইঘুর মুসলিম পুরুষ ও মহিলাদের। 

রাষ্ট্র সংঘের রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে যখনই কেউ এই নির্যাতনের প্রতিবাদ করেছে, তাদের তুলে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ। তারপর থেকে আর তাদের কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। এমনকি বহু মসজিদ ধ্বংস করা, হত্যা করা সমেত ধর্মীয় অধিকার কেড়ে নেওয়ার মতো বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে ওই রিপোর্টে। 

এমন রিপোর্ট পেশ করলেও রাষ্ট্র সংঘ মানবাধিকার কমিশন চীনকে কোনও কড়া নির্দেশ দেয়নি। বরং বেশ কিছু পরামর্শ(recommendation) দিয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে ক্যাম্পে বন্দী থাকা সবাইকে মুক্তি দেওয়া, উইঘুর মুসলিমদের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনার তদন্ত করা, মসজিদ ভাঙার ঘটনার তদন্ত ইত্যাদি।

তবে এই রিপোর্টকে মানতে নারাজ চীন। রাষ্ট্র সংঘের মানবাধিকার কমিশনের এই রিপোর্টকে ‛মিথ্যাচার’ আখ্যা দিয়ে চীনের বিদেশ মন্ত্রক বলেছে, ‛আমেরিকা ও পশ্চিমী দেশগুলির চিনবিরোধী এজেন্ডার অংশ হিসেবে এমন রিপোর্ট পেশ করেছে রাষ্ট্র সংঘ’।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom