Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

মহারাষ্ট্র: হিন্দু যুবককে খুন করে লাশ নদীতে ভাসিয়ে দিলো মুসলিম প্রেমিকার পরিবার

ছবি: খুন হওয়া দীপক বারদে

সানিয়া শেখ নামে এক মুসলিম তরুণীকে ভালোবাসতেন জনজাতি ভিল সম্প্রদায়ের হিন্দু যুবক দীপক বারদে। দুজনে বিয়ে করতে চেয়ে সানিয়াকে নিয়ে বাড়িও ছেড়েছিলেন দুজনে। কিন্তু দীপকের মুসলিম প্রেমিকা সানিয়ার পিতা ও তাঁর আত্মীয়রা তাকে খুন করে দেহ গোদাবরী নদীতে ফেলে দেয়। ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে সানিয়ার বাবা মজনু শেখ সমেত মোট সাত জনকে গ্রেপ্তার করেছে। 

দীপক বারদে মহারাষ্ট্রের আহমেদনগর জেলার শ্রীরামপুর থানার অন্তর্গত ভোকার গ্রামের বাসিন্দা। পাশের গ্রামের মজনু শেখের কন্যা সানিয়ার সঙ্গে তাঁর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু এ সম্পর্ক নিয়ে প্রথম থেকে আপত্তি ছিল সানিয়ার পরিবার ও আত্মীয়দের। কিন্তু তা সত্বেও দুজনে বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। 

দীপকের পিতা রাওসাহেব বারদে জানান, গত ৩১শে আগস্ট সানিয়াকে নিয়ে বাড়ি ছাড়েন দীপক। কিন্তু প্রথমে দুই একদিন ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ থাকলেও কয়েকদিন পর থেকে আর দীপকের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল না তাঁর, জানিয়েছেন দীপকের পিতা। তারপরই শ্রীরামপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে পুলিশ সানিয়ার পিতা মজনু শেখকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সানিয়ার পিতা মজনু শেখ ছাড়াও চাচা ইমরান শেখ এবং চাচাতো ভাই সমীর শেখ ও আজিজ শেখকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এছাড়াও, মজনু শেখের কয়েকজন প্রতিবেশীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৪, ৩৪২, ৩৬৪ এবং SC & ST (Prevention of Atrocities) Act-এ মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। 

তারপর মজনু শেখকে জেরা করে মজনু শেখ ও তাঁর ৬ জন আত্মীয়কে। গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জেরায় ধৃতরা জানায় যে, সম্পর্ক মেনে নেওয়ার টোপ দিয়ে সানিয়া ও দীপককে ডেকে আনেন তাঁরা। তারপর দীপককে একটি ঘরে বেঁধে ফেলা হয়। তারপর চলতে থাকে বেধড়ক মারধর। অতিরিক্ত মারধরের কারণে মৃত্যু হয় দীপকের। শেষে দীপকের মৃতদেহ গোদাবরী নদীতে ফেলে দেন তাঁরা।

এই তথ্য পাওয়ার পরই দীপকের দেহের খোঁজে গোদাবরী নদীতে শুরু হয় তল্লাশি অভিযান। কিন্তু কয়েক ঘন্টা তল্লাশি চালানো পরেও দীপকের দেহ খুঁজে পাওয়া যায়নি। পুলিশের বক্তব্য যে কয়েকদিন আগে দেহ নদীতে ফেলার কারণে স্রোতের টানে দেহ অন্য কোথাও ভেসে চলে যেতে পারে। আশেপাশের থানাকে এ বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। 


Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom