Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

পাকিস্তান: ভয়াবহ বন্যার মধ্যেও থেমে নেই বর্বরতা, সিন্ধু প্রদেশে হিন্দু তরুণীকে গণধর্ষণ করলো মুসলিম দুষ্কৃতীরা

Representative image; Credits: NDTV

ভয়াবহ বন্যার কবলে পাকিস্তানের বিস্তীর্ণ অংশ। খাদ্য ও পানীয় জলের সংকট দেখা দিয়েছে দেশটিতে। এমন পরিস্থিতিতে মানুষ যখন বেঁচে থাকতে সংগ্রাম করছে, ঠিক তখনও দেশটির সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের উপরে নির্যাতন থেমে নেই। বন্যার কবলে পড়া হিন্দু তরুণীকে ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে নিয়ে গিয়ে আটকে রেখে চললো গণধর্ষণ। ঘটনা পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের।

জানা গিয়েছে, গত বুধবার সিন্ধু প্রদেশের সংঘুর জেলার শাহদাদপুর গ্রামের ওই হিন্দু তরুণীকে ত্রাণ দেওয়ার নাম করে ডেকে নিয়ে যায় পেশায় অটো চালক খালিদ। তারপর ওই তরুণীকে একটি ঘরে আটকে রাখে সে। তারপর খালিদ ও তাঁর বন্ধু দিলশার মিলে ওই তরুণীকে দুই দিন ধরে গণধর্ষণ করে। দুই দিন ধরে পাশবিক নির্যাতন চালানোর পর ওই তরুণীকে ছেড়ে দেয় তাঁরা। 

পরে ওই তরুণী বাড়ি ফিরে এসে পুরো ঘটনা খুলে বলে। ইতিমধ্যেই নির্যাতিতা ওই হিন্দু তরুণীর বক্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ওই তরুণীকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‛আমাকে খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার নাম করে ডেকে নিয়ে যায় খালিদ। তারপর খালিদ ও দিলশার মিলে আমাকে দুই দিন ধর্ষণ করে। একটু জল খেতে দিয়েছিল আমাকে। তারপর আমাকে আমার বাড়ির কাছে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।”

পাকিস্তানের সংখ্যালঘু হিন্দুদের উপরে নির্যাতনের ঘটনা নতুন নয়। পাকিস্তানের অন্যান্য প্রান্তে হিন্দুদের প্রায় নিশ্চিহ্ন করে ফেললেও সিন্ধু প্রদেশে বেশি সংখ্যক হিন্দুদের বসবাস। প্রায় প্রতি মাসেই এই সিন্ধু প্রদেশ থেকে ভয়াবহ হিন্দু নির্যাতনের খবর আসে। কিন্তু বর্তমান বন্যা পরিস্থিতির শিকার হওয়ায় চরম দুর্ভোগে দিন কাটাচ্ছেন হিন্দুরা। এই এই অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছে ইসলামিক মৌলবাদীরা। হিন্দু এলাকায় দল বেঁধে হামলা চালাচ্ছে ইসলামিক মৌলবাদীরা। বাড়িঘরের যেটুকু বেঁচে আছে, তা লুটপাট করার পাশাপাশি মহিলাদের ধর্ষণ করার চেষ্টা করে চলেছে তাঁরা। 

এর আগে উমেরকোট থেকে এমন খবর এসেছিল। গত ৩১শে আগস্ট, এক পাকিস্তানি হিন্দু ব্যক্তি অভিযোগ করেছিলেন যে মুসলিম দুষ্কৃতীরা তাদের বাড়ির মেয়েদের ধর্ষণ করার চেষ্টা করছিল। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। 

এর আগে গতকালই সিন্ধু প্রদেশের ৮ বছর বয়সী এক হিন্দু নাবালিকা গণধর্ষণের শিকার হয়েছিল। দুষ্কৃতীরা ওই নাবালিকাকে অপহরণ করে এবং গণধর্ষণের পর নির্মম অত্যাচার চালায়। তাঁর সারা শরীরে ধারালো অস্ত্রেরআঁচড় দেওয়ার পাশাপাশি চোখ গেলে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। আপাতত হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন ওই হিন্দু নাবালিকা। 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom