Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

হিন্দুত্ব ব্যবহার করে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টায় আম আদমি পার্টি

 

Image credits: TFI POST

২০২০ সালে বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী ভারতীয় নোটে লক্ষী ও গণেশের ছবি ছাপানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন। এই প্রেক্ষিতে তিনি ইন্দোনেশিয়ার উদাহরণ এনেছিলেন। ইন্দোনেশিয়ার ২০,০০০ টাকার নোটে গণেশের ছবি রয়েছে। দীপাবলিতে একই ধরনের কথা শুনতে পাওয়া যায় অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গলায়। অনেকেই মনে করতেন, এই ধরনের কুসংস্কার থেকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন কেজরিওয়াল।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন করে আম আদমি পার্টির জন্ম হচ্ছে বলা যেতে পারে। বা পরিবর্তিত আম আদমি পার্টির উত্থান শুরু হয়েছে। কেজরিওয়ালের বুধবারের মন্তব্যের অনেক আগে থেকেই আপের বেশ কিছু পরিবর্তন বোঝাচ্ছে, রাজনৈতিক দলটি হিন্দু ধর্মকে আশ্রয় করে এগিয়ে যেতে চাইছে। তবে তার অর্থ আপ মুসলিম, খ্রিস্টান বা অন্যান্য সংখ্যালঘু ধর্ম বিরোধী নয়। হিন্দু ধর্মকে আশ্রয় করে আপ এগিয়ে যেতে চাইলেও এখানেই আপের সঙ্গে বিজেপির পার্থক্য।

সম্প্রতি ভারতীয় মুদ্রায় দেব-দেবীর ছবি ছাপানো নিয়ে কেজরিওয়ালের মন্তব্য আপের যে একটি রাজনৈতির পদক্ষেপ তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে সম্প্রতি আপের একাধিক পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। মূলত গুজরাট প্রচারে আপ আহ্বায়ক অরবিন্দ কেজরিওয়াল একাধিক বক্তব্য রেখেছেন হিন্দুদের গুরুত্ব দিয়ে। সেই বক্তব্য কোনওভাবেই ধর্মনিরপেক্ষ নয়। সেই বক্তব্য একটু পর্যালোচনা করলে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কাছ থেকে ভারতীয় নোটে হিন্দু দেব-দেবী সম্পর্কিত বক্তব্যে আশ্চর্য হতে হয় না।

এর আগে গুজরাটে বক্তব্য রাখতে গিয়ে নিজেকে শ্রীকৃষ্ণের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, ভগবান তাকে কংসের সন্তানের হাত থেকে গুজরাটকে বাঁচাতে পৃথিবীতে পাঠিয়েছেন। সম্প্রতি বিজেপি মুসলিম তোষণকারী বলে আপকে নিশানা করেন। তারপর থেকেই হিন্দু ভোটব্যাঙ্ক মাথায় রেখে আপ নেতাদের বক্তব্যের অনেকটা জুড়ে হিন্দু ধর্ম থাকে।

তবে হিন্দুত্বের হাওয়া তুলে রাজনৈতিক ময়দানে ফায়দা নেওয়ার ঘটনা ভারতীয় রাজনীতিতে নতুন নয়। এর পূর্বে একাধিক বিরোধী রাজনৈতিক দল অভিযোগ করেছিল যে বিজেপি হিন্দুত্ব ইস্যুকে সামনে রেখে ভোটে বাজিমাত করে। রাম মন্দির ইস্যু নিয়েও এমন অভিযোগ উঠেছিল বিজেপির বিরুদ্ধে। এবার সেই একই পথে হাঁটতে চাইছে আপ, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। গুজরাটের হিন্দুত্ববাদী জনতার মনে জায়গা করে নিতে চেষ্টার কোনও খামতি রাখছেন না অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এক্ষেত্রে তাঁর একাধিক বক্তব্যে সেই হিন্দুত্বকে হাতিয়ার করেছেন। বলা ভালো নরম হিন্দুত্ব। এর এতে গুজরাটের এক শ্রেণীর ভোটার দ্বিধাবিভক্ত হতে পারেন, আশঙ্কা করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। 

বিশেষজ্ঞেরা জানিয়েছেন, আগের বর্তমান নীতি নিয়ে নতুন করে রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়েছে। এখন বিজেপির হিন্দুত্ব কনাম আপের হিন্দুত্বের একটা লড়াই দেখা দিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে উপকার হচ্ছে আদতে আরএসএসের বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। যেভাবে হিন্দু ধর্মকে সামনে রেখে আপ গুজরাটে প্রচার চালাচ্ছে, সেক্ষেত্র আরএসএসের সামনে বিজেপির বিকল্প একটি রাজনৈতিক দল তৈরি হচ্ছে আম আদমি পার্টি।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom