Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

বাংলাদেশ: তোলা না দেওয়ায় কালী প্রতিমা ভাঙচুর, গ্রেপ্তার ৪ মৌলবাদী

ছবি: দাঁড় করানোর পর মা কালীর প্রতিমা

দাবিমতো তোলার টাকা না দেওয়ায় কালী পূজার দিনই মন্দিরের কালী প্রতিমা ভাঙচুর করলো দুষ্কৃতীরা। পরে ঘটনার তদন্তে নেমে ৪ জন দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনা বাংলাদেশের দিনাজপুর জেলার অন্তর্গত সদর উপজেলার চেহেলগাজি ইউনিয়নের অন্তর্গত গোবিন্দপুর।গ্রামের শ্মশান কালী মন্দিরের।

জানা গিয়েছে, কালী পূজাকে কেন্দ্র করে ওই মন্দিরের কাছে মেলা বসেছিল। সেখানে স্থানীয় কয়েকজন জুয়ার আসর বসান। আর তাই পূজা কমিটির কাছে ৫ হাজার টাকা দাবি করেন এলাকার কয়েকজন মুসলিম দুষ্কৃতী। কিন্তু কালী পূজা কমিটির লোকজন ৩ হাজার টাকা দিয়ে জানান যে তাঁরা আর বাকি টাকা দিতে পারবেন না। তাতে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। 

কিছুক্ষণ পরই ওই মন্দিরে হামলা চালায় একদল মুসলিম দুষ্কৃতী। তাঁরা স্থানীয় লোকজনকে মারধর করেন। মন্দিরের ভিতরে থাকা কালী প্রতিমা ভেঙে ফেলে দিয়ে যায়। মারধরের কারণে সকলে পালিয়ে যাওয়ায় মন্দির চত্বর শুনশান হয়ে পড়ে।

পরে স্থানীয় হিন্দুরা ফিরে এসে দেখেন যে মন্দিরের প্রতিমা উপুড় হয়ে পড়ে আছে। তাঁরা সেই ভাঙা প্রতিমা দাঁড় করান। দেখা যায় যে কালী প্রতিমা ভাঙা। আর তা দেখেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তাঁরা। পরে ক্ষুব্ধ হিন্দুরা ঘটনার প্রতিবাদে দিনাজপুর-রংপুর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন। গভীর রাত পর্যন্ত চলে সেই অবরোধ। 

পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন কোতোয়ালি থানার পুলিশ অফিসার তানভীরুল ইসলাম এবং পূজা উদযাপন পরিষদের স্থানীয় নেতৃত্ব। তাঁরা দ্রুত দুষ্কৃতীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের আশ্বাস দিলে রাত্রি আড়াইটা নাগাদ অবরোধ তুলে নেন স্থানীয় হিন্দুরা।

পরে গতকাল ২৫শে অক্টোবর অভিযান চালিয়ে ৪ জন ইসলামিক মৌলবাদী দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধৃতরা হলো সদর উপজেলার চেহেলগাজী ইউনিয়নের হবি চেয়ারম্যানপাড়া এলাকার সুজাত আলীর ছেলে বেলাল উদ্দিন (২৫), একই উপজেলার বড়ইল গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে তুষার (২০), একই এলাকার হাসেম আলীর ছেলে রকি আহম্মেদ (৩০) এবং একই উপজেলার মুজায়েদপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আসাদুজ্জামান (২৫)। 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom