Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

কর্ণাটক: এই প্রথম! ধর্মান্তরন প্রতিরোধী আইনে গ্রেপ্তার হলেন সৈয়দ মঈন

(Representative Image)

ধর্মান্তরন প্রতিরোধী আইন পাস হওয়ার পর এই প্রথম কেউ গ্রেপ্তার হলেন কর্ণাটকে। এক হিন্দু তরুণীকে তাঁর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর করে ইসলামে ধর্মান্তরিত করার অভিযোগে এক মুসলিম যুবককে গ্রেপ্তার করলো কর্ণাটক পুলিশ। ধৃত যুবকের নাম সৈয়দ মঈন(২৪)। 

জানা গিয়েছে, গত ৫ই অক্টোবর তারিখে এক মহিলা যশবন্তপুর থানায় তাঁর মেয়ের নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়েই তদন্তে নামে পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে যে নিখোঁজ মেয়েটি সৈয়দ মঈন নামে এক যুবকের সঙ্গে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করেছে। পরে তাদেরকে অন্ধ প্রদেশ থেকে আটক করে কর্ণাটকে নিয়ে আসে পুলিশ।

তদন্তে জানা যায় যে ঐ হিন্দু তরুণীটি তাঁর প্রেমিককে বিয়ে করতে গিয়ে ইসলামে ধর্মান্তরিত হয়েছে। ধর্মান্তরিত হওয়ার নথিপত্রও আসে পুলিশের হাতে। তারপরই ওই যুবকের বিরুদ্ধে ধর্মান্তরন প্রতিরোধী আইনে মামলা দায়ের করে পুলিশ। কারণ নতুন আইন অনুযায়ী, বিবাহের কারণে অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়া বেআইনি। 

তারপরই সৈয়দ মঈনের বিরুদ্ধে ‛The Karnataka Protection of Right to Freedom of Religion Act’-এর ৫ নং ধারায় মামলা দায়ের করে পুলিশ। তারপর ধৃতকে নিজেদের হেফাজতে নেয় জেরা করতে শুরু করে পুলিশ। জেরায় ধৃত যুবক তাঁর হিন্দু প্রেমিকাকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করার অভিযোগ মেনে নেয়। 

উল্লেখ্য, গত বছর কর্ণাটক সরকার Karnataka Protection of Right to Freedom of Religion Act আইন পাস করায়। এই বছর ৩০শে সেপ্টেম্বর আইনটি সে রাজ্যে লাগু হয়। আইন অনুযায়ী, বিবাহ কিংবা অন্য কোনও সুবিধার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্মান্তরন করা সম্পূর্ণ বেআইনি। আর আইনে বলা হয়েছে যে ধর্মান্তরনের অভিযোগ প্রমাণিত হলে জেল ও জরিমানা দুটোই হতে পারে।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom