Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

বেলজিয়াম: মুখে ‛আল্লাহু আকবর’, মুসলিম শরণার্থীর ছুরির কোপে মৃত্যু পুলিশকর্মীর

Image credits: Brussels Times

বেলজিয়ামের ব্রাসেলস(Brussels)-এ মুসলিম শরণার্থীর ছুরির কোপে মৃত্যু হলো এক পুলিশকর্মীর। গত ১০ই নভেম্বর সন্ধ্যায় ব্রাসেলস রেল স্টেশনের বাইরে ঘটনাটি ঘটে। পরে হামলাকারী যুবককে লক্ষ্য করে গুলি চালায় পুলিশ। গুলিতে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে হামলাকারী যুবক। 

খবর অনুযায়ী, ওই পুলিশকর্মী সেরবিক রুয়ে ডি শর্ট এলাকার একটি রাস্তায় টহলদারী করছিলেন। আনুমানিক সন্ধ্যা ৭টা ১৫ নাগাদ এক যুবক ‛আল্লাহু আকবর’ স্লোগান দিয়ে ওই পুলিশকর্মীর উপরে ঝাঁপিয়ে পড়েন। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই পুলিশকর্মীর গলায় ধারালো ছুরি দিয়ে একাধিকবার কোপ মারে ওই যুবক। পাশে থাকা আর পুলিশকর্মী বাঁচাতে গেলে তাকেও কোপায় ওই যুবক। 

পরে অভিযুক্ত যুবক পালানোর চেষ্টা করে। তখন তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় পুলিশ। তাঁর পায়ে ও পেটে গুলি লাগে। বর্তমানে ওই যুবক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অন্যদিকে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় এক পুলিশকর্মীর। অন্য একজন পুলিশকর্মী আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই ঘটনাকে সন্ত্রাসবাদী হামলা হিসেবে ধরে নিয়েই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। কারণ গত সপ্তাহেই একইরকম একটি ঘটনা ঘটেছিল। ফলে এমন ঘটনা আবার ঘটায় চিন্তিত পুলিশ থেকে সরকার।

খবর অনুযায়ী, অভিযুক্ত যুবক মুসলিম এবং তাঁর বয়স ২৯ বছর। শরণার্থী হিসেবে বেশ কয়েকবছর আগে বেলজিয়ামে এসেছিল সে। এমনকি বেলজিয়ামের নাগরিকত্ব পেয়েছিল সে। কিন্তু বারবার শরণার্থীরা সন্ত্রাসবাদী হামলা করায় ক্ষোভ বাড়ছে দেশটিতে। অতীতে মানবিক কারণে মুসলিম শরণার্থীদের দেশের নাগরিকত্ব দেওয়ার পক্ষে সমর্থন করলেও বর্তমানে বিরোধিতায় সরব বহু মানুষ। কারণ শরণার্থীরা খুন, ধর্ষণ, অপহরণ এবং দাঙ্গার মতো অপরাধমূলক কাজে লিপ্ত। ফলে বহু মানুষের দাবি, নতুন করে শরনার্থী নেওয়া বন্ধ করা এবং যাদের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়নি, তাদের ফেরত পাঠানো হোক। শুধু বেলজিয়াম নয়, সারা ইউরোপ জুড়েই এমন দাবি উঠছে।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom