Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

পাকিস্তানি হিন্দু শরণার্থীদের বস্তিতে ৩০ দিনের মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে হবে, টাটা পাওয়ারকে নির্দেশ দিল্লী হাইকোর্টের

ছবি: পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু শরণার্থী(Credits: OpIndia)

৩০ দিনের মধ্যে পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু শরণার্থীদের বস্তিতে থাকা ঘরগুলিতে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে হবে। এক মামলার ভিত্তিতে বিদ্যুৎ কোম্পানি টাটা পাওয়ার-কে এমনই নির্দেশ দিল দিল্লী হাইকোর্ট। পাশাপাশি বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার পর তা নিয়ে দিল্লী হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ করারও নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

উল্লেখ্য, বেশ কয়েক বছর আগে ধর্মীয় পরিচয়ের কারণে অত্যাচারের শিকার হয়ে ভারতে আসেন ২০০টি পাকিস্তানি হিন্দু পরিবার। তাঁরা দিল্লীতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের জমিতে তাদের বস্তি গড়ে তোলেন। কিন্তু CAA লাগু না হওয়ার কারণে এখনও পর্যন্ত ভারতের নাগরিকত্ব পাননি তাঁরা। ফলে সাধারণ জীবনযাপনের জন্য পর্যাপ্ত নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে একপ্রকার মানবতের জীবন কাটাচ্ছেন তাঁরা। মূলত দীর্ঘমেয়াদী ভিসায় এদেশে রয়েছেন তাঁরা।

কিন্তু বস্তিতে বিদ্যূৎ সংযোগ না থাকায় চরম সমস্যার মুখে পড়েছিলেন তাঁরা। টাটা পাওয়ারের অফিসে বারবার আবেদন করা সত্বেও বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়নি তাদের। স্থানীয় নেতাদের কাছে আবেদন জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। টাটা পাওয়ারের তরফে জানানো হয়েছিল যে জমির মালিকানার কাগজপত্রের প্রমান দেখালে তবেই মিলবে বিদ্যুৎ সংযোগ। 

আর এই বঞ্চনার প্রতিবাদে এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সহযোগিতায় দিল্লী হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেন হরি ওম নামে একজন পাকিস্তানি হিন্দু শরণার্থী। সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতি সতীশ চন্দ্র শর্মা এবং বিচারপতি সুব্রাহ্মন্য প্রসাদের ডিভিশন বেঞ্চ টাটা পাওয়ার-এ ভর্ৎসনা করেন। স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্য জমির কাগজপত্রের প্রয়োজন নেই। যেহেতু ওই শরণার্থীরা দীর্ঘমেয়াদী ভিসায় এদেশে রয়েছেন, তাই তাঁরা যতদিন থাকবেন, তাদের ততদিন বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে হবে। পাশাপাশি কোর্টের কড়া নির্দেশ, আগামী ৩০ দিনের মধ্যে ২০০টি পাকিস্তানি হিন্দু শরণার্থী পরিবারে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে হবে।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom