Breaking Posts

6/trending/recent
Type Here to Get Search Results !

মুসলিম মহিলাদের নিকাহ বিচ্ছেদ করার অধিকার আছে, রায় দিলো কেরালা হাইকোর্ট; এ রায় মানি না, বললো মুসলিম পার্সোনাল ল' বোর্ড

Representative Image(Credits: Mint)


কেরালা হাইকোর্টের এক রায়কে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলো অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল' বোর্ড(AIMPLB)। সাফ জানিয়ে দিলো, এমন রায় মানি না। কারণ তা শরিয়া আইন বিরোধী। 

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে কেরালা হাইকোর্ট এক মুসলিম মহিলার করা আবেদনের ভিত্তিতে রায় দিয়েছিল যে একজন মুসলিম মহিলা চাইলেই নিকাহ বিচ্ছেদ করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। তাঁর সেই অধিকার রয়েছে এবং এক্ষেত্রে স্বামীর অনুমতি নেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। আর কেরালা হাইকোর্টের এমন রায়ে বেজায় চটেছে মুসলিম পার্সোনাল ল' বোর্ড। 

বোর্ডের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ রহমানী এক বিবৃতি জারি করে নিজের ক্ষোভ ব্যক্ত করেছেন। বিবৃতিতে তিনি উল্লেখ করেছেন যে হাইকোর্ট এমন রায় দেবার সময় মুসলিমদের নিজস্ব শরিয়া আইনকে উপযুক্তভাবে ব্যাখ্যা করেননি। তাছাড়া শরিয়া অনুযায়ী এমন নির্দেশ মুসলিমদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। তাই এমন নির্দেশ মুসলিমরা মানবে না।

কারণ হিসেবে ইসলাম ধর্ম থেকে তথ্য দিয়েছেন রহমানী। তিনি বলেন, ইসলামে চার ধরণের নিকাহ বিচ্ছেদ অর্থাৎ তালাক দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। একটি হলো তিন তালাক, যেখানে স্বামী তাঁর স্ত্রীকে তিনবার তালাক বলে সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে। অন্যটি হলো খুলা তালাক, যেখানে স্ত্রী নিকাহ বিচ্ছেদ করার জন্য আবেদন করে। তাঁর স্বামী অনুমতি দিলেই তবে তালাক হয়। এছাড়াও, অন্য দুই ধরণের তালাক আছে বলে জানান রহমানী।

যেহেতু কেরালা হাইকোর্ট রায় দেওয়ার সময় শরিয়া আইনের ব্যাখ্যা কিংবা উল্লেখ না করে এমন রায় দিয়েছে, তাই এই রায় মুসলিমদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। এই রায় শরিয়া আইনের বিরোধী, তাই এমন রায় মানা সম্ভব নয় বলে মত প্রকাশ করেন রহমানী।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Ads Bottom